Thursday, January 28, 2021

ওজিল জার্মানির হয়ে আর খেলবো না

 জার্মানির হয়ে আর খেলবো না: ওজিল

জার্মানির হয়ে আর না খেলার ঘোষণা দিয়েছেন ফুটবল তারকা মেসুত ওজিল। তুর্কি গণমাধ্যমকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেছেন তিনি। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে আল জাজিরা।

সম্প্রতি সাড়ে তিন বছরের চুক্তিতে তুরস্কর ক্লাব ফেনারবাচে যোগ দিয়েছেন এ অভিজ্ঞ মিডফিল্ডার। ছেড়েছেন ভালোবাসার ক্লাব আর্সেনাল।

জার্মানির হয়ে না খেলা প্রসঙ্গে ওজিল বলেন, ‘আমি জার্মান জাতীয় দলের সফলতায় খুব খুশি হব। কিন্তু সে দেশের হয়ে আর কখনও খেলবো না।’

প্রিয় ক্লাব আর্সেনাল ছাড়ার বিষয়ে এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘আর্সেনালের সঙ্গে গত প্রায় সাড়ে সাত বছরে পথচলা আমার জন্য ছিল দারুণ ও উপভোগ্য।

আমরা একসঙ্গে শিরোপা জিতেছি ও এমন কিছু দারুণ মুহূর্ত কাটিয়েছি, যা সারাজীবন স্মৃতিতে থাকবে আমার। আমি এ মুহূর্তে আর্সেনাল সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানাতে চাই।’

২০১৩ সালে স্প্যানিশ ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে সেই সময়ের ক্লাব রেকর্ড ৪২.৫ মিলিয়ন পাউন্ড ট্রান্সফার ফিতে আর্সেনালে যোগ দেন ওজিল। প্রথম মৌসুমেই আর্সেনালকে এফএ কাপের শিরোপা এনে দেন বিশ্বকাপজয়ী এ মিডফিল্ডার।

আর্সেনালের জার্সিতে প্রায় সাড়ে সাত বছরে তিনটি এফএ কাপের শিরোপা জেতার পাশাপাশি সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ২৫৪ ম্যাচ খেলেছেন ওজিল। করেছেন ৪৪ গোল। এর পরও গত বছরের মার্চ থেকে কোচ মিকেল আর্তেতার দলে উপেক্ষিত ছিলেন তিনি।

চলতি মৌসুম পর্যন্ত চুক্তি থাকলেও এবারের ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ ও ইউরোপা লিগে তাকে মাঠে নামায়নি আর্সেনাল। এমন পরিস্থিতিতে ১৩ মিলিয়ন ইউরোতে তুরস্কের ফেনারবাচে নাম লেখালেন ওজিল। আর্সেনালে তার বেতন ছিল বার্ষিক ২০ মিলিয়ন ইউরো।

প্রতিভাবান এই মিডফিল্ডারের জন্ম জার্মানিতে হলেও তিনি তুর্কি বংশোদ্ভূত। তার স্ত্রী একজন তুর্কি নারী। তুরস্কের বর্তমান প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানের সঙ্গে চমৎকার সম্পর্ক রয়েছে ওজিলের।তার বিয়েতে সস্ত্রীক উপস্থিত ছিলেন এরদোগান। সেই সময় বিষয়টি ভালোভাবে নেননি জার্মান নাগরিকরা। গত বিশ্বকাপে ভালো পারফরম করতে পারেননি ওজিল। সেই সময় জার্মানির সাবেক তারকা ফুটবলারসহ অনেকেই ওজিলের সমালোচনা করে বলেছিলেন, ওজিল জার্মানির জন্য মন দিয়ে খেলেন না।


শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios: