তিন প্রকল্পে ২৬৬ কোটি ডলার ঋণ দিচ্ছে জাপান

 

মাতারবাড়ি কয়লাভিত্তিক আলট্রা সুপার বিদ্যুৎকেন্দ্র এবং দ্বিতীয় পর্যায়ের মেট্রোরেল প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য বাংলাদেশ ও জাপান সরকারের মধ্যে ২৩০ কোটি ডলারের ঋণ চুক্তি সই হয়েছে। এটি এক ধরনের বিনিয়োগ চুক্তি। একই সঙ্গে 'কোভিড-১৯ ক্রাইসিস রেসপন্স ইমার্জেন্সি সাপোর্ট'-এর আওতায় দ্বিতীয় পর্যায়ে ৩৬ কোটি ৫০ লাখ ডলারের ঋণ চুক্তি করেছে দুই দেশ।

সোমবার ঢাকার আগারগাঁওয়ে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) সম্মেলন কক্ষে এসব চুক্তি সই হয়েছে।অর্থ মন্ত্রণালয় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, বিনিয়োগ প্রকল্প দুটির জন্য স্বাক্ষরিত ঋণের যে অংশ নির্মাণ কাজে ব্যবহার হবে তার বাৎসরিক সুদহার শুন্য দশমিক ৬০ শতাংশ। যে অংশ পরামর্শক সেবার জন্য ব্যবহার হবে তার সুদহার শুন্য দশমিক শুন্য এক শতাংশ। আর করোনা সংকট মোকাবেলার ঋণের সুদহার বার্ষিক শুন্য দশমিক ৫৫ শতাংশ। এসব ঋণের অর্থ লেনদেন সম্পন্ন করার (ফ্রন্ট অ্যান্ড ফি) ক্ষেত্রে শুন্য দশমিক ২ শতাংশ সুদ দিতে হবে। এ ঋণ ১০ বছরের গ্রেস পিরিয়ডসহ ৩০ বছরে পরিশোধযোগ্য।

বাংলাদেশের পক্ষে উভয় চুক্তিতে সই করেন ইআরডি সচিব ফাতিমা ইয়াসমিন। আর জাপানের পক্ষে বিনিয়োগ চুক্তিতে ঢাকাস্থ জাপানি রাষ্ট্রদূত ইতো নাওকি এবং করোনা সংকট মোকাবেলার ঋণ চুক্তিতে বাংলাদেশস্থ জাইকা অফিসের চিফ রিপ্রেজেন্টেটিভ ইয়োহো ইয়াকাওয়া সই করেন। অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল ভার্চুয়ালি যুক্ত ছিলেন। এছাড়া উভয় পক্ষের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

অর্থমন্ত্রী মুস্তফা কামাল বলেন, বঙ্গবন্ধু সড়ক ও যমুনা নদীর উপরে রেল সেতু, ঢাকা শহরের মেট্রো রেল নেটওয়ার্ক, হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনাল, মাতারবাড়ি পাওয়ার প্লান্ট ও মাতারবাড়ী সমুদ্র বন্দরসহ বেশ কয়েকটি বড় প্রকল্প বাস্তবায়নে জাপান সরকারের সম্পৃক্ততা রয়েছে। এটা দুই দেশের অকৃত্রিম বন্ধুত্বের বহিঃপ্রকাশ।

Post a Comment

0 Comments