Showing posts with label আন্তর্জাতিক. Show all posts
Showing posts with label আন্তর্জাতিক. Show all posts

Tuesday, May 17, 2022

৩০ বছর পর নারী প্রধানমন্ত্রী পাচ্ছে ফ্রান্স

৩০ বছর পর নারী প্রধানমন্ত্রী পাচ্ছে ফ্রান্স


৩০ বছর পর নারী প্রধানমন্ত্রী পাচ্ছে ফ্রান্স

দীর্ঘ ৩০ বছর পর ফ্রান্সে প্রধানমন্ত্রী হ‌তে যাচ্ছেন একজন নারী। সম্প‌তি অনু‌ষ্ঠিত দ্বিতীয় মেয়াদের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী হ‌য়ে দেশটির প্রেসিডেন্টের আসনে বসেছেন এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ। তি‌নি ফ্রা‌ন্সের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে এলিজাবেথ বোর্ন এর নাম ঘোষণা করেছেন।

সোমবার (১৬ মে) ফরাসি প্রেসিডেন্টের সরকারি দপ্তর এলিসি প্রাসাদের এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এর আগে বিদায়ী ফরাসি প্রধানমন্ত্রী জিন কাস্টেক্স প্রেসিডেন্টের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেন। এপ্রিলে ম্যাক্রোঁ পুনঃনির্বাচিত হওয়ার পর নতুন সরকারের পথ তৈরি করতে প্রত্যাশিতভাবে ব্যাপক রদবদল করা হচ্ছে।

২০২০ সালে আকস্মিকভাবে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পেয়েছিলেন কাস্টেক্স। তার বিদায়ে জুনে গুরুত্বপূর্ণ পার্লামেন্ট নির্বাচনের আগে ম্যাক্রোঁ মন্ত্রিসভা পুনর্গঠন করতে সক্ষম হবেন।

মধ্যপন্থী নেতা ম্যাক্রোঁ পুনঃনির্বাচিত হওয়ার পরে তাকে ঘরোয়া কর্মসূচি বাস্তবায়ন করতে পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতার প্রয়োজন হবে। তবে একটি নতুন বামপন্থী জোট এবং অতি ডানপন্থীরা তার কর্মসূচিকে আটকে দেওয়ার হুমকি দিয়েছে।

সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে কাস্টেক্সকে বদলানো নিয়ে জল্পনা চলছিল। ম্যাক্রোঁ ইঙ্গিত দেন, এই পদে তিনি বামপন্থী এবং পরিবেশগত বিশ্বাসযোগ্য একজন নারী নিয়ে আসবেন।

এই মানদণ্ডগুলো ম্যাক্রোঁর দ্বিতীয় মেয়াদের প্রথম দিকে স্কুল এবং স্বাস্থ্য ব্যবস্থার ওপর গুরুত্বারোপ করার ইচ্ছাকে প্রতিফলিত করে। একই সঙ্গে জলবায়ু সংকটকে তিনি অগ্রাধিকার দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

৬১ বছর বয়সী বোর্নকে একজন দক্ষ টেকনোক্র্যাট হিসেবে বিবেচনা কর হয়। তিনি ইউনিয়নগুলোর সঙ্গে সতর্কভাবে দর কষাকষি করতে পারেন।

ফ্রান্সের সর্বশেষ নারী প্রধানমন্ত্রী ছিলেন এডিথ ক্রেসন। তিনি ১৯৯১ সালের মে থেকে ১৯৯২ সালের এপ্রিল পর্যন্ত প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া মিটাররান্ডের অধীনে দায়িত্ব পালন করেন।

Saturday, May 14, 2022

ত্রিপুরার নতুন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সাহা

ত্রিপুরার নতুন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সাহা


ত্রিপুরার নতুন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সাহা

 

ত্রিপুরার পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব পাচ্ছেন মানিক সাহা। কিছুদিন আগেই তিনি রাজ্যসভার সদস্য নির্বাচিত হন। এর আগে ছিলেন, বিজেপির প্রাদেশিক সভাপতি। শনিবার (১৪ মে) তাকে সভাপতির পদ ছাড়তে বলা হয়। নতুন সভাপতি করা হয়, সদ্য পদত্যাগ করা মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লবকুমার দেবকে। খবর ইন্ডিয়া টুডের।

মুখ্যমন্ত্রী পদে বিপ্লব দেব ইস্তফা দেওয়ায় রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব জরুরি বৈঠকে বসে। দুটি নাম নিয়ে চর্চা চলছিল-মানিক সাহা এবং রাজ্যের উপমুখ্যমন্ত্রী জিষ্ণু দেববর্মা। শেষ পর্যন্ত মানিক সাহার কাঁধে রাজ্যশাসনের দায়িত্ব তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল প্রদেশ নেতৃত্ব।  

জানা গেছে, বিপ্লব দেবকে রাজ্যসভায় পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিজেপি কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। মানিক সাহা সংসদ সদস্য পদ থেকে ইস্তফা দেবেন। তার জায়গায় বিপ্লব দেবকে প্রার্থী করা হবে।

বিপ্লব দেব ইস্তফা দেওয়ায় রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব জরুরি বৈঠকে বসে। গঠন করা হয় কমিটি। দিল্লি থেকে পর্যবেক্ষক হিসেবে পাঠানো হয় ভূপেন্দ্র যাদবকে। তার নেতৃত্বে হয়েছে বৈঠক। ওই বৈঠকেই মানিক সাহার হাতে মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্বভার তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এর কারণ হিসেবে উঠে এসেছে, দলে তার গ্রহণযোগ্যতা। পাশাপাশি সকলকে নিয়ে কাজ করার অভিজ্ঞতাও রয়েছে। রয়েছে সাংগঠনিক অভিজ্ঞতা। সে কারণে মুখ্যমন্ত্রী পদে রাজ্য নেতৃত্ব তাকে নিয়োগের সিদ্ধান্ত নেয়। সরকারিভাবে বিজেপি ত্রিপুরার নতুন মুখ্যমন্ত্রীর নাম ঘোষণা করেনি। এখনও পর্যন্ত খবরে জানা যায়, শনিবার রাত আটটা নাগাদ সরকারিভাবে মুখ্যমন্ত্রীর নাম ঘোষণা করা হবে।

এর আগে পদত্যাগ করেছেন ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব। এক লাইনের চিঠি লিখে পদত্যাগের কথা জানান তিনি রাজ্যপালকে। রাজ্যটির বিধানসভা নির্বাচনের কয়েক মাস আগে মুখ্যমন্ত্রীর পদ ছাড়লেন তিনি। আগামী বছরেই ওই রাজ্যে বিধানসভা ভোট হওয়ার কথা রয়েছে।

বিশ্লেষকদের মতে, বিপ্লবের বিরুদ্ধে গুচ্ছ গুচ্ছ অভিযোগ জমা হচ্ছিল, তাতে তিনি কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের বিরাগভাজন হচ্ছিলেন। তাছাড়া প্রশাসনের বিভিন্ন প্যারামিটারেও বিপ্লবের ত্রিপুরা সরকার ক্রমেই পিছিয়ে পড়ছিল। মাত্র চার বছরেই ত্রিপুরা সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিষ্ঠান বিরোধিতা মাথাচাড়া দিয়ে উঠছিল। সম্ভবত ওই কারণেই বিধানসভা ভোটের আগে মুখ বদল করল গেরুয়া শিবির।

রাজনৈতিকমহলে মনে করছে, খুব কঠিন সময় রাজ্য শাসনের দায়িত্ব তুলে দেওয়া হলো মানিক সাহার কাঁধে। কারণ, তাদের শত্রু এখন আর সিপিএম নয়।

আমিরাতের নতুন প্রেসিডেন্ট শেখ মোহাম্মদ বিন জায়েদ

আমিরাতের নতুন প্রেসিডেন্ট শেখ মোহাম্মদ বিন জায়েদ


আমিরাতের নতুন প্রেসিডেন্ট শেখ মোহাম্মদ বিন জায়েদ
                                                                                         শেখ মোহাম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ান। ফাইল ছবি

সংযুক্ত আরব আমিরাতের নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন শেখ মোহাম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ান। আজ শনিবার এ পদের জন্য তাকে নির্বাচিত করেন দেশটির ফেডারেল সুপ্রিম কাউন্সিল। খবর প্রকাশ করেছে বিবিসি, আলজাজিরা ও বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

এর আগে গতকাল শুক্রবার আমিরাতের প্রেসিডেন্ট এবং আবুধাবির শাসক শেখ খলিফা বিন জায়েদ আলে নাহিয়ান মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৩ বছর।

দেশটির রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা ডাব্লিউএএম জানায়,  ফেডারেল সুপ্রিম কাউন্সিল শেখ মোহাম্মদকে নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত করেছেন। এর মাধ্যমে ১৯৭১  সালে বাবার প্রতিষ্ঠিত তেল সমৃদ্ধ দেশের শাসক হলেন তিনি। 

'এমবিজেড' নামে পরিচিত শেখ মোহাম্মদ সংযুক্ত আরব আমিরাতের সাতটি আমিরাতের শাসকদের নিয়ে গঠিত ফেডারেল সুপ্রিম কাউন্সিলের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করেন।  ফেডারেল সুপ্রিম কাউন্সিল তার সৎ ভাই প্রয়াত প্রেসিডেন্ট শেখ খলিফা বিন জায়েদ আল নাহিয়ানের মৃত্যুতে এক শোকসভার আয়োজন করে। সেখানেই তিনি নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হন। 

প্রয়াত শেখ খলিফার অসুস্থতার কারণে তিনিই কার্যুত দেশটির শাসন পরিচালনা করেছেন। তাই তার প্রেসিডেন্ট পদে দায়িত্বগ্রহণ অনেকটা প্রত্যাশিতই ছিল।

Sunday, March 27, 2022

৪৮ কোটি ছাড়ালো বিশ্বে করোনাভাইরাস আক্রান্ত

৪৮ কোটি ছাড়ালো বিশ্বে করোনাভাইরাস আক্রান্ত


 চলমান করোনাভাইরাসে মহামারিতে বিশ্বে আক্রান্তের সংখ্যা ৪৮ কোটি ছাড়িয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের জনস্ হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী, রবিবার (২৭ মার্চ) সকাল পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪৮ কোটি এক লাখ ৯ হাজার ৬৪০ জন এবং মোট মৃতের সংখ্যা ৬১ লাখ ২১ হাজার চার জনে দাঁড়িয়েছে।করোনাভাইরাস সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ যুক্তরাষ্ট্র এখন পর্যন্ত মোট শনাক্তের সংখ্যা সাত কোটি ৯৯ লাখ ৪৬ হাজার ৯৭ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছে ৯ লাখ ৭৬ হাজার ৬৫২ জন।এদিকে, দক্ষিণ আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ছয় লাখ ৫৯ হাজার ৪৬ জনে। দেশটিতে এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে দুই কোটি ৯৮ লাখ ৩৯ হাজার ১০৩ জন। বাংলাদেশের প্রতিবেশী দেশ ভারতে মোট চার কোটি ৩০ লাখ ১৮ হাজার ৩২ জনের সংক্রমণ চিহ্নিত হয়েছে। একই সময়ে মৃত্যু সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে পাঁচ লাখ ২০ হাজার ৮৫৫ জনে।

Saturday, March 26, 2022

ইউক্রেনে রাশিয়ার নতুন লক্ষ্য ঘোষণা

ইউক্রেনে রাশিয়ার নতুন লক্ষ্য ঘোষণা



ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলকে ‘মুক্ত’ করার দিকে আক্রমণের লক্ষ্য স্থির করার কথা জানিয়েছে রাশিয়া। সংবাদ মাধ্যম বিবিসি বলছে- রাশিয়ার এমন ঘোষণা দেশটির রণকৌশলে সম্ভাব্য পরিবর্তনের ইঙ্গিত দিচ্ছে।

রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় স্থানীয় সময় শুক্রবার দাবি করে- যুদ্ধের প্রাথমিক লক্ষ্যগুলো সম্পন্ন হয়েছে এবং ইউক্রেনের লড়াইয়ের সক্ষমতা কমাতে পেরেছে রাশিয়া।

রাশিয়ার সেনাবাহিনীর অপারেশন্‌স বিভাগের প্রধান সেরগেই রুদস্কইকে বলেছেন, ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলের দনবাস অঞ্চলের ‘পূর্ণ স্বাধীনতা’ নিশ্চিত করাই হবে এখন থেকে তাঁর সেনাদের প্রধান লক্ষ্য। ইউক্রেনে কথিত ‘সেনা অভিযানের’ এক মাসের মাথায় এসে এমন কথা বললেন রুশ সেনাবাহিনীর অন্যতম শীর্ষ কোন কর্মকর্তা।

রুশ সমর্থিত বিদ্রোহীরা ২০১৪ সালে দনবাসের বেশ কিছু এলাকা নিয়ন্ত্রণে নিয়ে নেয়। এরপর থেকে ওই অঞ্চলে বিদ্রোহী ও ইউক্রেনিয়ান সেনাদের মধ্যে লড়াইয়ে কমবেশি ১৫ হাজার মানুষ প্রাণ গেছে।

রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় শুক্রবার বলেছে, তাদের ‘বিশেষ সেনা অভিযানের’ দুটো ভিন্ন ভিন্ন লক্ষ্য ছিল। একটি হলো- পুরো ইউক্রেন এবং অন্যটি শুধু দনবাস।

বিবিসি বলছে, রুশ সেনাবাহিনীর অপারেশন্‌স বিভাগের প্রধানকে উদ্ধৃত করে রুশ সরকারি বার্তা সংস্থায় প্রচারিত এ খবর থেকে ইঙ্গিত পাওয়া যায়- রাশিয়া হয়তো ইউক্রেন যুদ্ধ থেকে তাদের লক্ষ্য হাসিলের মাত্রা কমিয়েছে। কারণ, হয়তো ইউক্রেনের উত্তরে এবং রাজধানী কিয়েভে রুশ সেনারা শক্ত প্রতিরোধের মুখে পড়ছে।

সেরগেই রুদস্কই বলছেন- লুহানস্ক ওব্লাস্ট অঞ্চলের ৯৩ শতাংশ এবং দনিয়েস্ক ওব্লাস্ট অঞ্চলের ৫৪ শতাংশ এখন রুশ সৈন্যদের দখলে। তিনি বলেন, গত এক মাসের যুদ্ধে রাশিয়া ইউক্রেনের বিমান বাহিনী ও নৌবাহিনীর বেশির ভাগ ধ্বংস করে দিয়েছে। তাঁর মন্তব্য- যুদ্ধের ‘প্রথম ধাপটি সাফল্যের সঙ্গে শেষ হয়েছে।’

এখন থেকে ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলের নিয়ন্ত্রণ নেওয়াই রাশিয়ার প্রধান লক্ষ্য- এমন কথা বলার পাশাপাশি রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলছে- ইউক্রেনের আকাশে ‘নো-ফ্লাই জোন’ ঘোষণা করলেই মস্কো পাল্টা ব্যবস্থা নেবে। এছাড়া ইউক্রেনের অবরুদ্ধ অন্যান্য শহরে হামলা বন্ধের বিষয়ে কোন কথাও বলা হয়নি।

রুশ বার্তা সংস্থা আরআইএ রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়কে উদ্ধৃত করে বলেছে, ভ্লাদিমির পুতিনের লক্ষ্য অর্জন না হওয়া পর্যন্ত সেনা অভিযান চলবে। তবে, কী সে লক্ষ্য, তা পরিষ্কার করা হয়নি।

যুক্তরাজ্যের গোয়েন্দা বিষয়ক পরামর্শক সংস্থা সিবিলাইনের প্রধান নির্বাহী এবং সাবেক ব্রিটিশ সেনা কর্মকর্তা জাস্টিন ক্রাম্প বিবিসিকে বলেছেন, রাশিয়া গত এক মাসে তাদের যুদ্ধে তেমন সাফল্য পায়নি। এবং তার প্রধান কারণ, তারা একসঙ্গে অনেকগুলো ফ্রন্টে লড়াই করছে।

তবে জাস্টিন ক্রাম্প বলেন, রাশিয়া পূর্বাঞ্চলীয় লুহানস্ক নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার লক্ষ্য অর্জনে ‘অনেকটাই সফল হয়েছে’ এবং দানেস্ক অঞ্চলে তীব্র লড়াই চলছে। তিনি বলেন, ‘সেখান (দানেস্ক) থেকে খুব কম খবরই আমরা পাচ্ছি। সেখানে তীব্র লড়াই হচ্ছে। আগামী কয়েক সপ্তাহে আমরা সেখানে তীব্র লড়াই দেখব।’

ক্রাম্প আরও বলেন, রুশ সেনা এখন ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে তাদের অবস্থান শক্ত করছে। এবং একইসঙ্গে ইউক্রেনের শহরগুলোর ওপর অব্যাহত ভাবে ভারী গোলাবর্ষণ করে মানুষজনকে ‘উদ্বেগের মধ্যে রেখেছে’, তাদের ‘জিম্মি করে ফেলেছে।’

Wednesday, March 23, 2022

বিশ্বে ৬১ লাখ ২১ হাজার প্রাণ নিল করোনা

বিশ্বে ৬১ লাখ ২১ হাজার প্রাণ নিল করোনা



বিশ্বে ৬১ লাখ ২১ হাজার প্রাণ নিল করোনা

চলমান মহামারি করোনা ভাইরাসের ভয়াল থাবায় বিশ্বজুড়ে দৈনিক মৃতের সংখ্যা ক্রমে বৃদ্ধি পেয়েছে। একই সঙ্গে আগের দিনের তুলনায় উল্লেখযোগ্য পরিমাণে বেড়েছে প্রাণঘাতী ভাইরাসে নতুন সংক্রমিত রোগীর সংখ্যাও। গেল ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে কোভিড শনাক্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন প্রায় পাঁচ হাজার মানুষ। নির্ধারিত এই সময়ের মধ্যে রোগটিতে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় পৌনে ১৭ লাখে পৌঁছেছে।

সর্বশেষ এক দিনে বিশ্বজুড়ে সবচেয়ে বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটল দক্ষিণ কোরিয়ায়। এ দিকে দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় এখনো শীর্ষস্থানে রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নাম। আর প্রাণ হারানোদের তালিকায় এরপরই রয়েছে যথাক্রমে- রাশিয়া, ব্রাজিল, দক্ষিণ কোরিয়া, জার্মানি, হংকং এবং ব্রিটেন। এতে বিশ্বব্যাপী করোনার থাবায় আক্রান্তের সংখ্যা ৪৭ কোটি ৪০ লাখের ঘর ছাড়িয়েছে। অপর দিকে মৃতের সংখ্যাও এরই মধ্যে ৬১ লাখ ২১ হাজারে পৌঁছে গেছে।

বুধবার (২৩ মার্চ) বাংলাদেশ সময় সকাল ১০টা পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে মৃত্যু, আক্রান্ত ও সুস্থতার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডো মিটারস থেকে পাওয়া সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, শেষ ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে কোভিড সংক্রমিত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন চার হাজার ৮৫৯ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েছে দেড় হাজারের অধিক। এতে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা ৬১ লাখ ২১ হাজার ৭৪১ জনে দাঁড়িয়েছে।

নির্ধারিত এই সময়ের মধ্যে প্রাণঘাতী ভাইরাসটিতে নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ১৬ লাখ ৭২ হাজার ৬৮৬ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় নতুন আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েছে ছয় লাখেরও বেশি। এতে মহামারির তাণ্ডব শুরুর পর থেকে ভাইরাসটিতে এ পর্যন্ত শনাক্ত মোট রোগীর সংখ্যা বেড়ে ৪৭ কোটি ৪০ লাখ ৬৬ হাজার ৭৫৭ জনে দাঁড়িয়েছে।

এ দিকে গত এক দিনে বিশ্বে করোনার থাবায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমণের ঘটনা দেখল দক্ষিণ কোরিয়ার জনগণ। একই সময়ে দেশটিতে নতুন করে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন তিন লাখ ৫৩ হাজার ৭২৫ জন। আর মারা গেছেন ৩৮৪ জন। করোনা মহামারির তাণ্ডব শুরুর পর থেকে পূর্ব এশিয়ার দেশটিতে এ পর্যন্ত ৯৯ লাখ ৩৬ হাজার ৫৪০ জন রোগটিতে আক্রান্ত বলে শনাক্ত হয়েছেন এবং মৃত্যু হয়েছে ১৩ হাজার ১৪১ জনের।

আরও পড়ুন : রুশ-ইউক্রেন যুদ্ধে বিশ্বে খাদ্য সংকটের শঙ্কা

অন্য দিকে দৈনিক প্রাণ হারানোদের তালিকায় শীর্ষস্থানে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। একই সময়ে মার্কিন ভূখণ্ডে নতুন করে করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন ২৩ হাজার ৫৫২ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৮১৭ জন। করোনা ভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশটিতে এ পর্যন্ত আট কোটি ১৪ লাখ ৭৬ হাজার ২১৪ জন রোগটিতে আক্রান্ত বলে শনাক্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে নয় লাখ ৯৯ হাজার ৭৯২ জন মারা গেছেন।

শেষ ২৪ ঘণ্টায় রাশিয়ায় করোনার থাবায় আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন ৪৭২ জন এবং নতুন করে রোগটিতে সংক্রমিত হয়েছেন ২৬ হাজার ৩৯৪ জন। এছাড়া মহামারির তাণ্ডব শুরুর পর থেকে দেশটিতে এ পর্যন্ত মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে এক কোটি ৭৬ লাখ ৩৭ হাজার ৭৯৫ জনে দাঁড়িয়েছে। এদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে তিন লাখ ৬৫ হাজার ৩৭৩ জনের।

এছাড়া পশ্চিম ইউরোপের দেশ জার্মানিতে নতুন করে করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন দুই লাখ ৬৮ হাজার ৩৫৭ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৩২৪ জন। করোনা মহামারির তাণ্ডব শুরুর পর থেকে ইউরোপীয় দেশটিতে এ পর্যন্ত এক কোটি ৯১ লাখ ৩৪ হাজার ৫৮৫ জন করোনায় আক্রান্ত বলে শনাক্ত হয়েছেন এবং এক লাখ ২৭ হাজার ৮৬৫ জন প্রাণ হারিয়েছেন।

করোনার থাবায় আক্রান্তদের দিক থেকে তৃতীয় ও প্রাণহানি সংখ্যায় তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ল্যাটিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল। গেল এক দিনে দেশটিতে রোগটিতে সংক্রমিত হয়ে মারা গেছেন ৪১০ জন। আর নতুন করে করোনায় শনাক্ত হয়েছেন ৪১ হাজার ৮৩৮ জন। অপর দিকে মহামারির তাণ্ডব শুরুর পর থেকে দেশটিতে এ পর্যন্ত মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দুই কোটি ৯৬ লাখ ৮৩ হাজার ৬৮৬ জনে দাঁড়িয়েছে। এদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ছয় লাখ ৫৭ হাজার ৭৭৩ জনের।

করোনার থাবায় আক্রান্তদের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে দক্ষিণ এশিয়ার ঘনবসতিপূর্ণ দেশ ভারত। যদিও প্রাণঘাতী ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারানোদের সংখ্যার তালিকায় দেশটির অবস্থান এখন তৃতীয়। মহামারির তাণ্ডব শুরু পর থেকে দেশটিতে এ পর্যন্ত মোট আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে চার কোটি ৩০ লাখ ১০ হাজার ৯৭১ জনে দাঁড়িয়েছে। আর মারা গেছেন পাঁচ লাখ ১৬ হাজার ৫৭৪ জন।


গেল ২৪ ঘণ্টায় ইউরোপের মুসলিম রাষ্ট্র তুরস্কে নতুন করে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১৭ হাজার ৪২৬ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৯০ জন। একই সময়ে ইতালিতে নতুন করে রোগটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ৯৬ হাজার ৩৬৫ জন। আর মারা গেছেন ১৯৭ জন। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দ্বীপরাষ্ট্র ইন্দোনেশিয়ায় নতুন করে কোভিড আক্রান্ত হয়েছেন সাত হাজার ৪৬৪ জন এবং প্রাণ গেছে ১৭০ জনের।

শেষ এক দিনে ফরাসি ভূখণ্ডে নতুন করে করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন এক লাখ ৮০ হাজার ৭৭৭ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১৩৩ জনের। করোনা মহামারির তাণ্ডব শুরুর পর থেকে দেশটিতে এ পর্যন্ত দুই কোটি ৪৩ লাখ ৪২ হাজার ১১৬ জন রোগটিতে আক্রান্ত বলে শনাক্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে এক লাখ ৪১ হাজার ২১৮ জনের। শেষ ২৪ ঘণ্টায় পূর্ব এশিয়ার দেশ জাপানে নতুন করে কোভিড আক্রান্ত হয়েছেন ২৯ হাজার ৬৫৭ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৫৭ জনের।

গেল এক দিনে ব্রিটেনে নতুন করে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৫৬ হাজার ২৬৮ জন এবং প্রাণ গেছে ২৫০ জনের। করোনা মহামারির তাণ্ডব শুরুর পর থেকে দেশটিতে এ পর্যন্ত দুই কোটি চার লাখ ১৩ হাজার ৭৩১ জন রোগটিতে আক্রান্ত বলে শনাক্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে এক লাখ ৬৩ হাজার ৯২৯ জন মারা গেছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় স্পেনে নতুন করে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১৩ হাজার ৫৩৬ জন এবং মারা গেছেন ৮৬ জন।

এছাড়া করোনার থাবায় সংক্রমিত হয়ে গত এক দিনে হংকংয়ে ২৪৫ জন, হাঙ্গেরিতে ৪৮ জন, আর্জেন্টিনায় ৭৬ জন, মালয়েশিয়ায় ৭২ জন, ইরানে ৭৩ জন, থাইল্যান্ডে ৮৩ জন এবং পোল্যান্ডে ১৩৩ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। অন্য দিকে নির্ধারিত ২৪ ঘণ্টায় উত্তর আমেরিকার দেশ মেক্সিকোতে মারা গেছেন ১৫ জন। মহামারির তাণ্ডব শুরুর পর থেকে দেশটিতে এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে তিন লাখ ২২ হাজার ১০৭ জনের।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাসে এশিয়ার পরাশক্তি চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে প্রথম করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর গত বছরের ১১ মার্চ প্রাণঘাতী ভাইরাসটিকে ‘বৈশ্বিক মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। এর আগে একই বছরের ২০ জানুয়ারি সংস্থাটি বিশ্বজুড়ে জরুরি পরিস্থিতি ঘোষণা করে।

Tuesday, March 22, 2022

১৩২ আরোহী নিয়ে বিধ্বস্ত  প্লেনের  খোঁজ মেলেনি এখনও

১৩২ আরোহী নিয়ে বিধ্বস্ত প্লেনের খোঁজ মেলেনি এখনও



প্লেন বিধ্বস্ত


চীনের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে ১৩২ আরোহী নিয়ে একটি প্লেন বিধ্বস্ত হয় সোমবার (২১ মার্চ) বিকালে। দুর্ঘটনার প্রায় ১৮ ঘণ্টা পার হলেও এখনো খোঁজ মিলেনি আরোহীদের। অব্যাহত রয়েছে উদ্ধার কাজ।

এদিকে, এখনো অপেক্ষায় রয়েছেন ভুক্তভোগীদের স্বজনরা। যদিও ধারণা করা হচ্ছে, আরোহীদের হয়তো কেউ আর বেঁচে নেই।

সংবাদ সংস্থা শিনহুয়া জানিয়েছে, মঙ্গলবার (২২ মার্চ) পর্যন্ত উদ্ধার কাজ অব্যাহত রয়েছে। প্রায় দুই হাজার উদ্ধারকর্মী যোগ দিয়েছে এতে।

দেশটির গুয়াংঝি অঞ্চলে ইস্টার্ন এয়ারলাইন্সের ওই প্লেনটি বিধ্বস্ত হয়। প্লেনটিতে ১২৩ জন যাত্রী ও ৯ জন ক্রু সদস্য ছিলেন। ফ্লাইট এমইউ৫৭৩৫ গুয়াংঝি শহরের উদ্দেশে কুনমিং থেকে যাত্রা করেছিল।

দুর্ঘটনার পর একটি গাড়ির ড্যাশবোর্ডের ক্যামেরায় ধারণ করা একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে চীনের গণমাধ্যমগুলো। সেখানে দেখা গেছে প্লেনটি যেন সরাসরি আকাশ থেকে মাটির দিকে যাচ্ছে।

এদিকে, দুর্ঘটনার পরপরই প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন সংশ্লিষ্টদের। তিনি আরোহীদের উদ্ধারে সব ধরনের তৎপরতা অব্যাহত রাখারও নির্দেশনা দিয়েছেন।

Saturday, March 19, 2022

১৪ হাজারের বেশি রুশসেনা নিহত, দাবি ইউক্রেনের

১৪ হাজারের বেশি রুশসেনা নিহত, দাবি ইউক্রেনের



 ১
রুশসৈন্যদের প্রাণহানি


মস্কোর আগ্রাসনের প্রথম তিন সপ্তাহে রাশিয়ার সামরিক বাহিনীর ১৪ হাজারের বেশি সৈন্য নিহত হয়েছেন বলে দাবি করেছে ইউক্রেন। শনিবার ইউক্রেনের জেনারেল স্টাফ দেশটিতে রাশিয়ার সঙ্গে যুদ্ধের হালনাগাদ তথ্য প্রকাশ করে রুশসৈন্যদের প্রাণহানির এই দাবি জানিয়েছেন।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে দেওয়া এক পোস্টে ইউক্রেনের কর্মকর্তারা বলেছেন, এখন পর্যন্ত রাশিয়ার প্রায় ১৪ হাজার ৪০০ সৈন্য নিহত হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, এক হাজার ৪৭০টি সৈন্যবাহী সাঁজোয়া যান, ৬০টি ট্যাংক এবং শতাধিক যুদ্ধবিমান ও হেলিকপ্টারসহ বিপুল পরিমাণ সামরিক সরঞ্জাম হারিয়েছে মস্কো। তবে ইউক্রেনের এই দাবি নিরপেক্ষভাবে যাচাই করা সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছে বিবিসি।

যদিও পশ্চিমা গোয়েন্দা সূত্রগুলো ইউক্রেন যুদ্ধে রাশিয়ার ৭ হাজারের মতো সৈন্য নিহত ও আরও ১৪ হাজার থেকে ২১ হাজারের মতো সৈন্য আহত হয়েছে বলে আভাস দিয়েছে।

রাশিয়ার সামরিক বাহিনীর পঞ্চম সেনা জেনারেলকে হত্যার দাবি জানানোর পর শনিবার এই পরিসংখ্যান প্রকাশ করেছে ইউক্রেন। ইউক্রেন সংঘাতে এখন পর্যন্ত নিহত সবচেয়ে জ্যেষ্ঠ রুশ কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল আন্দ্রেই মর্দভিচেভ। যদিও বিবিসি এই সেনা কর্মকর্তাকে ইউক্রেনের হত্যার দাবি যাচাই করতে পারেনি।

ইউক্রেনে প্রথমবারের মতো নতুন কিনজাল হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করে হামলা চালিয়েছে রাশিয়া। দেশটির পশ্চিমাঞ্চলের একটি অস্ত্রাগার ধ্বংস করতে ওই ক্ষেপণাস্ত্রের ব্যবহার করা হয়েছে বলে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে।

রাশিয়ার রাষ্ট্রায়ত্ত সংবাদসংস্থা আরআইএ নভোস্তি বলেছে, এর আগে রাশিয়া কখনই ইউক্রেন যুদ্ধে উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন নির্ভুল নিশানার অস্ত্র ব্যবহারের কথা স্বীকার করেনি। পশ্চিমাপন্থি ইউক্রেনের সংঘাতে এবারই প্রথম কিনজাল হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করা হয়েছে।

শনিবার রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ইভানো-ফ্রাঙ্কিভস্ক অঞ্চলের ডেলিয়াটিন গ্রামে ক্ষেপণাস্ত্র এবং বিমানের গোলাবারুদের ভূগর্ভস্থ বিশাল একটি অস্ত্রাগার ধ্বংস করা হয়েছে। এই অস্ত্রাগার ধ্বংসে হাইপারসনিক অ্যারোব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পাশাপাশি কিনজাল ক্ষেপণাস্ত্রও ব্যবহার করা হয়েছে।

তবে এ ব্যাপারে দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের একজন মুখপাত্র ফরাসি বার্তাসংস্থা এএফপির কাছে মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন।

Thursday, March 17, 2022

পুতিনকে ‍‍`যুদ্ধাপরাধী‍‍` আখ্যায়িত করলেন বাইডেন

পুতিনকে ‍‍`যুদ্ধাপরাধী‍‍` আখ্যায়িত করলেন বাইডেন


পুতিনকে ‍‍`যুদ্ধাপরাধী‍‍` আখ্যায়িত করলেন বাইডেন
ফাইল ফটো।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে ‘যুদ্ধাপরাধী’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। ইউক্রেনে সামরিক অভিযান পরিচালনা করার কারণে বুধবার (১৬ মার্চ) রুশ প্রেসিডেন্টকে এই তকমা দেন তিনি। এর আগে ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের নিন্দা জানিয়ে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে সর্বসম্মতিক্রমে যুদ্ধাপরাধী আখ্যা দেয় যুক্তরাষ্ট্রের সিনেট। বৃহস্পতিবার (১৭ মার্চ) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হোয়াইট হাউসে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে বাইডেন বলেন, ‘আমি মনে করি তিনি (পুতিন) একজন যুদ্ধাপরাধী।’ যদিও প্রেসিডেন্ট পুতিনকে যুদ্ধাপরাধী বলবেন কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে প্রাথমিক ভাবে ‘না’ উত্তর দিয়েছিলেন বাইডেন।

অবশ্য হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি জেন সাকি পরে বলেন, (পুতিনকে ‘যুদ্ধাপরাধী’ আখ্যায়িত করার বিষয়ে) প্রেসিডেন্ট বাইডেন তার মন থেকে কথা বলছেন। তিনি আরও বলেন, পুতিন আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন ও যুদ্ধাপরাধ করেছেন কি না তা নির্ধারণের জন্য একটি পৃথক আইনি প্রক্রিয়া রয়েছে এবং সেই প্রক্রিয়াটি বর্তমানে পররাষ্ট্র দপ্তরে চলছে।

এই প্রথমবারের মতো প্রেসিডেন্ট বাইডেন প্রকাশ্যেই পুতিনকে যুদ্ধাপরাধী’ হিসেবে আখ্যায়িত করলেন। গত সপ্তাহে, পোল্যান্ড সফরের সময় মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস বলেছিলেন, ইউক্রেনে সম্ভাব্য যুদ্ধাপরাধের জন্য রাশিয়ার বিরুদ্ধে তদন্ত করা উচিত।

এর আগে ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের নিন্দা জানিয়ে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে যুদ্ধাপরাধী আখ্যা দেয় যুক্তরাষ্ট্রের সিনেট। গত মঙ্গলবার হওয়া ভোটাভুটিতে সর্বসম্মতিক্রমে মার্কিন সিনেট পুতিনকে নিন্দা জানিয়ে যুদ্ধাপরাধী হিসেবে চিহ্নিত করে।

বিরল এই ক্রস-পার্টি ভোটের মাধ্যমে পুতিনকে যুদ্ধপরাধী আখ্যা দেওয়ার পাশাপাশি ইউক্রেন আক্রমণের বিষয়ে রুশ প্রেসিডেন্টর সিদ্ধান্তের তদন্ত করতে হেগের আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের প্রতি আহ্বানও জানানো হয়।

Sunday, March 13, 2022

ইউক্রেনের ১৩০০ সৈন্য নিহত : জেলেনস্কি

ইউক্রেনের ১৩০০ সৈন্য নিহত : জেলেনস্কি

 যুদ্ধে ইউক্রেনের ১৩০০ সৈন্য নিহত : জেলেনস্কি


রাশিয়ার সেনাবাহিনীর সঙ্গে যুদ্ধের প্রথম ১৭ দিনে ইউক্রেনের অন্তত এক হাজার ৩০০ সৈন্য প্রাণ হারিয়েছেন বলে দাবি করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। শনিবার (১২ মার্চ) রাজধানী কিয়েভে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ইউক্রেনীয় সৈন্যদের প্রাণহানির তথ্যটি জানিয়েছেন তিনি। যদিও রাশিয়ার সৈন্য হতাহতের ব্যাপারে এখন পর্যন্ত কোনো তথ্য প্রকাশ করেননি তিনি।

জেলেনস্কি বলেছেন, রুশ আগ্রাসনে এখন পর্যন্ত এক হাজার ৩০০ ইউক্রেনীয় সৈন্য প্রাণ হারিয়েছেন। জেলেনস্কির এই তথ্য নিরপেক্ষভাবে যাচাই করা যায়নি বলে জানিয়েছে যুক্তরাজ্যের মিডিয়া বিবিসি নিউজ। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলেছে, পশ্চিমা সূত্রগুলোর ধারণা— একই সময়ে ইউক্রেন যুদ্ধে রাশিয়ার প্রায় ছয় হাজার সেনা সদস্য মৃত্যুবরণ করেছেন।

এ দিকে শনিবার রাজধানী কিয়েভের উপকণ্ঠের ছোট ছোট শহরগুলোতে রুশ সৈন্যদের সঙ্গে তুমুল সংঘর্ষ শুরু হয়েছে ইউক্রেনের সামরিক বাহিনীর। ইউক্রেনীয় কর্মকর্তারা বলছেন, রাশিয়ার ভারী গোলাবর্ষণ, বিমান হামলার হুমকি এবং শহর ঘিরে ফেলার কারণে কিয়েভ ছাড়তে মরিয়া বেসামরিক নাগরিকদের সরিয়ে নেওয়ার চেষ্টা বাধাগ্রস্ত হচ্ছে।

প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি মনে করেছেন, ইউক্রেনীয় বাহিনী রাশিয়ান ট্যাক্টিক্যাল গ্রুপের ৩১টি ব্যাটালিয়নকে নিষ্ক্রিয় করায় রাশিয়া নতুন করে সৈন্য পাঠাচ্ছে। ব্যাটালিয়ন নিষ্ক্রিয় করার এই ঘটনাকে কয়েক দশকের মধ্যে রাশিয়ার সামরিক বাহিনীর সবচেয়ে বড় ক্ষতি। শুধুমাত্র শুক্রবারই রাশিয়ার ৫০০-৬০০ সৈন্য আত্মসমর্পণ করেছে।

শনিবার জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শোলৎজ এবং ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোর সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেছিলেন জেলেনস্কি। টেলিফোনে আলাপকালে ইউক্রেনের মেলিতপোল শহরের মেয়রকে রুশ সৈন্যরা অপহরণ করেছে বলে অভিযোগ তুলেছেন তিনি। ঘটনাটির তীব্র নিন্দা এবং মেয়রকে মুক্তি দিতে রাশিয়ার প্রতি চাপপ্রয়োগে ম্যাক্রো ও শোলৎজের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

পুতিনের সাথে আলোচনায় বসতে চান জেলেনস্কি, তবে কিয়েভ এবং মস্কোর সামরিক বাহিনীর যুদ্ধবিরতি ছাড়া রাশিয়ার সঙ্গে কোনো ধরনের শান্তি আলোচনা নয় বলে জানিয়ে দিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। শনিবার যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে মন্তব্যটি করেছেন তিনি।

প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি ভাষায়, কিয়েভ এবং মস্কোর বাহিনীগুলোর মধ্যে যুদ্ধবিরতি ছাড়া রাশিয়ার সঙ্গে কোনো ধরনের শান্তি আলোচনা শুরু হতে পারে না। ‘আমাদের কূটনীতিকরা কাজ করছেন। তারা আমাদের এবং রাশিয়ান ফেডারেশনের মধ্যে সম্ভাব্য একটি এজেন্ডার কিছু বিষয় নিয়ে কথা বলছেন। আমি এটির বাস্তবায়ন চাই। শতভাগ যুদ্ধবিরতির মাধ্যমে যুদ্ধ অবসানের প্রক্রিয়া, শান্তির প্রক্রিয়া শুরু হোক।

যদিও ইউক্রেনীয় নেতারা বলছেন, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে আলোচনার জন্য তারা প্রস্তুত। ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেটের সাথে টেলিফোনে আলাপকালে ‘পুতিনকে নিয়ে জেরুজালেমেও বসা যেতে পারে’ বলে জানিয়েছেন জেলেনস্কি।

প্রতিবেশী রাষ্ট্র রাশিয়া এবং ইউক্রেনীয় আলোচকদের বৈঠকে কিছু ইতিবাচক অগ্রগতি হয়েছে বলে পুতিন যে মন্তব্য করেছেন; সেটির উল্লেখ করে জেলেনস্কি জানান, তিনি রুশ ফেডারেশনের সংকেত পেয়ে আনন্দিত। গত ১২ বছর ধরে তিনি কখনই সংলাপের সম্ভাবনার ব্যাপারে কোনো কথা শুনতে পাননি।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট বলেছেন, কিয়েভ মনে করে রাশিয়ার সাথে উচ্চ-পর্যায়ের যে কোনো ধরনের আলোচনা নিরপেক্ষ ভূখণ্ডে অনুষ্ঠিত হওয়া উচিৎ। এ ধরনের আলোচনার সম্ভাব্য স্থান হিসাবে ইসরায়েলের কথা উল্লেখ করেছেন তিনি।

সূত্র : বিবিসি নিউজ, আরটি, রয়টার্স

Friday, March 11, 2022

ইউক্রেন যুদ্ধে ১৬ হাজার বিদেশি স্বেচ্ছাসেবক পাঠাচ্ছেন পুত

ইউক্রেন যুদ্ধে ১৬ হাজার বিদেশি স্বেচ্ছাসেবক পাঠাচ্ছেন পুত


ইউক্রেন যুদ্ধে ১৬ হাজার বিদেশি স্বেচ্ছাসেবক পাঠাচ্ছেন পুতিন


পূর্ব ইউক্রেনে রাশিয়ার হয়ে যুদ্ধ করতে মধ্যপ্রাচ্য থেকে স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগের অনুমতি দিয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। তিনি রাশিয়ার নিরাপত্তা পরিষদকে বলেছেন, ‘যদি দেখেন এই লোকেরা অর্থ ছাড়াই স্বেচ্ছায় দনবাসের লোকদের সাহায্য করতে আসছে, তবে যুদ্ধ এলাকায় যেতে তারা যা চায়, তা দেওয়া উচিত।’

প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু পুতিনকে বলেছেন, মধ্যপ্রাচ্য থেকে ১৬ হাজার স্বেচ্ছাসেবক দনবাসে আসতে প্রস্তুত রয়েছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়ার সরকারি সৈন্যদের ইউক্রেনে যুদ্ধ করার জন্য রাশিয়া অর্থ প্রদান করতে পারে—এমন গুঞ্জন রয়েছে।

রাশিয়ার বিমানবাহিনী ও বিশেষায়িত কিছু বাহিনী সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাসার আল আসাদের সরকারকে টিকিয়ে রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।

এর আগে ইউক্রেনের পক্ষ থেকে বলা হয়, তারা বিদেশি স্বেচ্ছাসেবকদের নিয়ে রুশ সেনাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য একটি বাহিনী গড়ছে।

রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিন দেশটির নিরাপত্তা পরিষদকে বলেছেন, ইউক্রেনের জন্য পশ্চিমা অর্থায়নে খুনি ভাড়া করা হচ্ছে, যা খোলাখুলিভাবে আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন।

পুতিন তাঁর প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগুর সঙ্গে একমত পোষণ করে বলেন, ইউক্রেন থেকে যেসব পশ্চিমা অস্ত্র জব্দ করা হয়েছে বিশেষ করে জ্যাভলিন অ্যান্টি ট্যাংক ক্ষেপণাস্ত্র ও স্টিংগার অ্যান্টি-এয়ারক্রাফট ক্ষেপণাস্ত্র দনবাসে লড়তে চাওয়া রুশপন্থী স্বেচ্ছাসেবকদের তা দেওয়া উচিত।

Thursday, March 10, 2022

বিশ্বে করোনার সংক্রমণ ৪৫ কোটি ছাড়াল

বিশ্বে করোনার সংক্রমণ ৪৫ কোটি ছাড়াল


বিশ্বে করোনার সংক্রমণ ৪৫ কোটি ছাড়াল

বিশ্বব্যাপী করোনায় মৃত্যু ও শনাক্তের সংখ্যা আবারও বেড়েছে। গত একদিনে বিশ্বে নতুন করে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) শনাক্ত হয়েছে ১৬ লাখ ২৯ হাজার ২৩৮ জন। এ নিয়ে বিশ্বে এ পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪৪ কোটি ৯৫ হাজার ৪৪ হাজার ৮৯৩ জন। 

বিশ্বে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৭ হাজার ১৩৪ জন। এ নিয়ে বিশ্বে মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬০ লাখ ৩৬ হাজার ৪০৭ জন। 

বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, মৃত্যু ও শনাক্তের হিসাব রাখা আন্তর্জাতিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারস থেকে বৃহস্পতিবার (১০ মার্চ) এ তথ্য জানা গেছে  ত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে ‍যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে নতুন করে ১ হাজার ২৯৯ জনের মৃত্যুর পাশাপাশি শনাক্ত হয়েছে ৩৩ হাজার ৬১৫ জন।  মৃত্যুর দিক দিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে রাশিয়া ৬৫২ জন। আর নতুন করে শনাক্ত ৬৬ হাজার ৫৭৬ জন।

গত একদিনে ব্রাজিলে ৫১৮ জনের মৃত্যুর পাশাপাশি ৭৫ হাজার ৪৯৫ জন শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে এ পর্যন্ত মোট মৃত্যু ও শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ৬ লাখ ৫২ হাজার ৯৩৬ এবং ২ কোটি ৯১ লাখ ৪৪ হাজার ৯৬৪ জনে। 

গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুর দিক দিয়ে শীর্ষে থাকা দেশের তালিকায় রয়েছে- যুক্তরাজ্য, জামার্নি, স্পেন, ইন্দোনেশিয়া ও পোল্যান্ড। ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহান থেকে করোনা ছড়িয়ে পড়লে তা পরবর্তীতে মহামারিতে রূপ নেয়। এরপরই বাড়তে থাকে মৃত্যু ও শনাক্তের সংখ্যা। তবে এ বছর করোনা পরিস্থিতি অনেকটা নিয়ন্ত্রণ আনতে পেরেছে বিশ্ব। তাও পুরোপুরিভাবে নয়।  ওয়ার্ল্ডোমিটার।

Monday, March 7, 2022

বিশ্বে করোনায় ৬০ লাখ ১৯ হাজার মৃত্যু

বিশ্বে করোনায় ৬০ লাখ ১৯ হাজার মৃত্যু

 


 

বিশ্বে করোনায় ৬০ লাখ ১৯ হাজার মৃত্যু


মহামারি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত একদিনে বিশ্বে চার হাজার ১২০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মোট মৃত্যু বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬০ লাখ ১৯ হাজার ৪৩৪ জনে।

ভাইরাসটিতে সর্বশেষ একদিনে নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ১১ লাখ ৫৮ হাজার ১৫২ জন। বিশ্বে মোট শনাক্ত বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৪ কোটি ৬৬ লাখ ১১ হাজার ৪৯৫ জনে।

একই সঙ্গে একদিনে করোনা থেকে সেরে উঠেছেন ১৩ লাখ ১৭ হাজার ৬৪৭ জন। এ নিয়ে করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৭ কোটি ৯৬ লাখ ২৯ হাজার ১৭৩ জনে।

সোমবার (৭ মার্চ) সকালে বৈশ্বিক পর্যায়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার নিয়মিত আপডেট দেওয়া ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

দৈনিক মৃত্যুতে তালিকায় সবার ওপরে রয়েছে রাশিয়া। দেশটিতে একদিনে মারা গেছেন ৭৪৪ জন। একই সময়ে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ৭৯ হাজার ৮৬৩ জন। দেশটিতে এ পর্যন্ত এক কোটি ৬৯ লাখ ৪১ হাজার ৬৫৬ জন করোনায় আক্রান্ত এবং মারা গেছেন তিন লাখ ৫৬ হাজার ২৮১ জন।

২৪ ঘণ্টায়ও সবচেয়ে বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছেন দক্ষিণ কোরিয়ায়। এ সময়ে দেশটিতে শনাক্ত হয়েছেন দুই লাখ ৪৩ হাজার ৬১২ জন। মারা গেছেন ১৬১ জন। দেশটিতে এ পর্যন্ত মোট শনাক্ত হয়েছেন ৪৪ লাখ ৫৬ হাজার ২৬৪ জন এবং মৃত্যু হয়েছে আট হাজার ৯৫৭ জনের।

করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ যুক্তরাষ্ট্র। একদিনে দেশটিকে করোনা শনাক্ত হয়েছে চার হাজার ৯০৩ জনের। এ নিয়ে শনাক্ত বেড়ে দাঁড়িয়েছে আট কোটি নয় লাখ ১৭ হাজার ৫২২ জনে। ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ১৮৩ জনের। এ নিয়ে মৃত্যু বেড়ে দাঁড়ালো নয় লাখ ৮৮ হাজার ২০ জনে।

আক্রান্তের দিক থেকে তালিকায় তৃতীয় ও মৃত্যুতে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ১৫ হাজার ৯৬১ জন এবং মারা গেছেন ২১৯ জন। এ নিয়ে দেশটিতে মোট শনাক্ত বেড়ে দুই কোটি ৯০ লাখ ৪৯ হাজার ১৩ জনে এবং মৃত্যু বেড়ে দাঁড়িয়েছে ছয় লাখ ৫২ হাজার ২০৭ জনে।

আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় ও মৃত্যুতে তৃতীয় অবস্থানে থাকা প্রতিবেশী দেশ ভারতে ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন চার হাজার ১২৪ জন এবং মারা গেছেন ৭০ জন। দেশটিতে এ পর্যন্ত মোট শনাক্ত চার কোটি ২৯ লাখ ৬৭ হাজার ৭৭ জন এবং মারা গেছেন পাঁচ লাখ ১৫ হাজার ১৩৩ জন।

একদিনে জার্মানিতে মারা গেছেন ৪৬ জন। নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন এক লাখ চার হাজার ৫৪৮ জন। মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা এক কোটি ৫৮ লাখ ২৮ হাজার ৪৫৫ জন এবং মারা গেছেন এক লাখ ২৪ হাজার ৭১৬ জন।


এছাড়া একদিনে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ফ্রান্সে ৩২ জন, তুরস্কে ১৭০ জন, ইতালিতে ১০৫ জন, আর্জেন্টিনায় ৬০ জন, ইরানে ২০১ জন, পোল্যান্ডে ১০ জন, ইন্দোনেশিয়ায় ২৫৪ জন, মেক্সিকোতে ২২০ জন, জাপানে ১৮৫ জন, চিলিতে ১২২ জন, ফিলিপাইনে ১৪৪ মারা গেছেন।

Sunday, March 6, 2022

রাশিয়ায় ভিসা, মাস্টারকার্ড ও পেপ্যাল সেবা বন্ধ

রাশিয়ায় ভিসা, মাস্টারকার্ড ও পেপ্যাল সেবা বন্ধ



ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের নিন্দা জানিয়ে এবার রাশিয়ায় কার্যক্রম স্থগিত করেছে অনলাইনে অর্থ লেনদেনের জনপ্রিয় প্ল্যাটফর্ম ভিসা, মাস্টারকার্ড ও পেপ্যাল।

প্রতিষ্ঠান তিনটির কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

মাস্টারকার্ড কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ইউক্রেন ইস্যুতে তারা নিজ সরকারের অবরোধের সঙ্গে একমত পোষণ করেছে। তাদের ইস্যুকৃত কোনো কার্ড ব্যবহার করতে পারবেন না রাশিয়ানরা।

ভিসার সিইও এবং চেয়ারম্যান আল কেলি বলেছেন, ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসনের ঘটনায় ভিসা এমন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছে।

পেপ্যালের প্রেসিডেন্ট এবং প্রধান নির্বাহী ড্যান শুলম্যান বলেছেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে রাশিয়ায় পেপ্যাল সেবা স্থগিত করছি। তবে প্রতিষ্ঠানটির একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, হঠাৎ করে আর্থিক সেবা বন্ধ করায় সীমিত সময়ের জন্য দেশটির গ্রাহকেরা অর্থ তোলার সুযোগ পাবেন।

এর আগে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও কানাডার নিষেধাজ্ঞার অংশ হিসেবে রাশিয়ার আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে আন্তর্জাতিক পেমেন্ট সিস্টেম সুইফটের লেনদেনও বন্ধ হয়ে যায়।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনের সামরিক অভিযান ঘোষণার কয়েক মিনিট পরেই ইউক্রেনে বোমা ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা শুরু করে রুশ সেনারা। এরপর থেকে ইউক্রেন ও রাশিয়ার মধ্যে যুদ্ধ চলছে। ইতোমধ্যে ইউক্রেন ছেড়েছেন ১২ লাখের বেশি মানুষ। এছাড়া দেশটির দুই হাজারের বেশি বেসামরিক নাগরিক নিহত এবং রাশিয়ার ৯ হাজার ১৬৬ সৈন্য নিহত হয়েছেন বলে দাবি করেছে ইউক্রেন।

অন্যদিকে রাশিয়া দাবি করেছে, যুদ্ধে তাদের ৪৯৮ সৈন্য নিহত এবং ইউক্রেনের ২ হাজার ৮৭০ জনের বেশি ইউক্রেনীয় সেনা নিহত হয়েছেন। এছাড়া জাতিসংঘ জানিয়েছে, রুশ হামলায় এখন পর্যন্ত ইউক্রেনের ৩৫১ বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। যদিও সংস্থাটি বলেছে, এটি নিশ্চিত যে প্রকৃত হতাহতের সংখ্যা হয়তো অনেক বেশি।

এদিকে চলমান সংকট নিরসনে আগের দুই বৈঠকে সমাধানে না আসতে পারায় ফের বৈঠকে বসতে যাচ্ছে রাশিয়া ও ইউক্রেনের প্রতিনিধিরা। সোমবার (৭ মার্চ) তৃতীয় দফায় আলোচনায় মিলিত হবে দুই দেশ। তবে এবারের বৈঠকটি কোথায় হচ্ছে সে তথ্য প্রকাশ করা হয়নি।

সূত্র : রয়টার্স, আলজাজিরা

Saturday, March 5, 2022

যুদ্ধবিরতি ঘোষণা রাশিয়ার

যুদ্ধবিরতি ঘোষণা রাশিয়ার



আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইউক্রেনের সমুদ্রতীরবর্তী দুই শহর মারিউপুল ও ভোলনোভখা’র বেসামরিক লোকজনকে যুদ্ধস্থল থেকে সরে যাওয়ার সুযোগ করে দিতে খণ্ডকালীন যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করেছে রাশিয়া। বেলারুশে রুশ ও ইউক্রেনীয় প্রতিনিধিদলের বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র।

শুক্রবার মস্কোতে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র সাংবাদিকদের বলেন, ‘আজ, ৫ মার্চ মস্কোর স্থানীয় সময় বেলা ১০ টা থেকে খণ্ডকালীন যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করেছে রাশিয়া। ইউক্রেনের মারিউপুল ও ভোলনোভখা’র বাসিন্দারা যেন নিরাপদ স্থানে সরে যেতে পারেন, সেজন্যেই এই যুদ্ধবিরতি দেওয়া হয়েছে।’

ওই মুখপাত্র আরও বলেন, বেসামরিক লোকজন শহরত্যাগের জন্য কোন কোন সড়ক ব্যবহার করবেন— সে সম্পর্কে মস্কোকে জানাতে সম্মত হয়েছে কিয়েভ।

কয়েক বছর আগে পশ্চিমা দেশগুলোর সামরিক জোট ন্যাটোর সদস্যপদের জন্য আবেদন করে ইউক্রেন এবং তার পর থেকেই এই ব্যাপারটিকে ঘিরে দ্বন্দ্ব শুরু হয় রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে।

এর মধ্যে ন্যাটো ইউক্রেনকে পূর্ণ সদস্যপদ না দিলেও ‘সহযোগী দেশ’ হিসেবে মনোনীত করায় দ্বন্দ্বের তীব্রতা আরও বাড়ে। ন্যাটোর সদস্যপদের জন্য আবেদন প্রত্যাহারে ইউক্রেনের ওপর চাপ প্রয়োগ করতে গত দুই মাস রাশিয়া-ইউক্রেন সীমান্তে প্রায় দুই লাখ সেনা মোতায়েন রেখেছিল মস্কো।

কিন্তু এই কৌশল কোনো কাজে আসেনি। উপরন্তু এই দু’মাসের প্রায় প্রতিদিনই যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্ররা অভিযোগ করে গেছে— যে কোনো সময় ইউক্রেনে হামলা চালাতে পারে রুশ বাহিনী।

অবশেষে গত ২২ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় দুই ভূখণ্ড দনেতস্ক ও লুহানস্ককে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেয় রাশিয়া; এবং তার দু’দিন পর, ২৪ তারিখ ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরুর নির্দেশ দেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

গত ৯ দিনের রুশ অভিযানে ইউক্রেন থেকে পালিয়ে পার্শ্ববর্শিতী রাষ্ট্র পোল্যান্ড ও রোমানিয়ায় আশ্রয় নিয়েছেন প্রায় ১০ লাখ ইউক্রেনীয়। এছাড়াও শতাধিক বেসামরিক মানুষ নিহত হয়েছেন, তাদের মধ্যে আছে উল্লেখযোগ্যসংখ্যক শিশুও।

রাশিয়া ও ইউক্রেনের সরকারি কর্মকর্তারা অবশ্য সংলাপ শুরু করেছেন। সাবেক সোভিয়েত রাষ্ট্র বেলারুশের উদ্যোগে দেশটির ইউক্রেন সীমান্তবর্তী শহর গোমেলে গত ২৮ ফেব্রুয়ারি প্রথম দফা বৈঠক হয় দুই দেশের প্রতিনিধিদলের মধ্যে।

তার পর দ্বিতীয় দফা বৈঠক হয় বৃহস্পতিবার। প্রথম বৈঠকে কোন কোন বিষয়ে আলোচনা হয়েছিল স্পষ্টভাবে জানা না গেলেও দ্বিতীয় দফার বৈঠকে তিনটি পয়েন্টের ওপর গুরুত্ব দেওয়া হয়। এগুলো হলো—

১.অবিলম্বে যুদ্ধবিরতি

২. অস্ত্রবিরতি

৩. অবিরাম গোলাবর্ষণে ধ্বংস হয়ে যাওয়া শহর এবং গ্রাম থেকে বেসামরিক লোকজনকে সরিয়ে নেওয়ার জন্য মানবিক করিডোর চালু।

এসবের মধ্যে তৃতীয় পয়েন্ট অর্থাৎ অবিরাম গোলাবর্ষণে ধ্বংস হয়ে যাওয়া শহর এবং গ্রাম থেকে বেসামরিক লোকজনকে সরিয়ে নেওয়ার জন্য মানবিক করিডোর চালুর ব্যাপারে রুশ ও ইউক্রেন প্রতিনিধিদল ঐকমত্যে পৌঁছেছেন বলে বৃহস্পতিবারই জানিয়েছিল আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো।

বর্তমানে ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভ, খারকিভ, শেরনিগভ, মারিউপোল ও ভোলনোভাখা শহরে ব্যাপক সংঘাত হচ্ছে রুশ ও ইউক্রেন বাহিনীর সেনা সদস্যদের মধ্যে। এসবের মধ্যে মারিউপোল ও ভোলনোভাখা শহরের অবস্থা সবচেয়ে সঙ্গীন বলে জানিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টের সহকারী মিখাইল পোদোলায়াক।

সূত্র: স্পুটনিক

ইউক্রেন ছেড়ে পালিয়েছেন জেলেনস্কি

ইউক্রেন ছেড়ে পালিয়েছেন জেলেনস্কি



ইউক্রেন ছেড়ে পালিয়েছেন জেলেনস্কি


রাশিয়ার এক আইনপ্রণেতার দাবি ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভালোদেমির জেলেনস্কি পোল্যান্ডে আত্মগোপন করেছেন। শুক্রবার (৪ মার্চ) রাশিয়ার সংবাদ মাধ্যম স্পুটনিকের বরাত দিয়ে ভারতীয় সংবাদসংস্থা এএনআই এ তথ্য জানিয়েছে।

এতে বলা হয়, স্পুটনিকে দেশটির আইনপ্রণেতা দুমা স্পিকার ভ্যাচেস্লাভ ভোলোদিন বলেছেন, প্রাণ বাঁচাতে শুক্রবার (৪ মার্চ) পোল্যান্ডে চলে গেছেন জেলেনস্কি।

এদিকে রিপাবলিক ওয়ার্ল্ড ডটকমের প্রাক প্রতিবেদনে বলা হয়, জেলেনস্কি এক ভিডিয়ো বার্তায় পোল্যান্ডে পালিয়ে যাওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। তিনি বলেছেন, আমি কিয়েভে আছি। আমি এখানে কাজ করছি। কেউ পালিয়ে যায়নি।

এর আগে, চলতি মাসের শুরুতেও জেলেনস্কির দেশত্যাগের খবর বেরিয়েছিল। সেটিকেও গুজব বলে উড়িয়েছেন তিনি।

এদিকে যুদ্ধের দশম দিনেও ইউক্রেনে ব্যাপক সংঘর্ষ চলছে। এদিন ইউক্রেনের উত্তরের শহর চারনিহিভে বড় বিস্ফোরণের খবর পাওয়া গিয়েছে। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, রুশ হামলায় এ শহরের ৪৭ জন বাসিন্দা মারা গেছে।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনের সামরিক অভিযান ঘোষণার কয়েক মিনিট পরেই ইউক্রেনে বোমা ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা শুরু করে রুশসেনারা। এরপর থেকে ইউক্রেন ও রাশিয়ার মধ্যে যুদ্ধ চলছে। ইউক্রেন দাবি করেছে, যুদ্ধে এখন পর্যন্ত ইউক্রেনের দুই হাজারের বেশি বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। যদিও নিহতের নির্দিষ্ট সংখ্যা জানায়নি তারা। এছাড়া রাশিয়ার ৯ হাজার ১৬৬ জন সৈন্য নিহত হয়েছেন বলে দাবি ইউক্রেনের।

অন্যদিকে রাশিয়া দাবি করেছে, যুদ্ধে তাদের ৪৯৮ সৈন্য নিহত এবং ইউক্রেনের ২ হাজার ৮৭০ জনের বেশি ইউক্রেনীয় সেনা নিহত হয়েছেন।

এছাড়া জাতিসংঘ জানিয়েছে, রুশ হামলায় এখন পর্যন্ত ১৯ শিশুসহ ইউক্রেনের ৩৩১ জন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। যদিও সংস্থাটি বলেছে, এটি নিশ্চিত যে প্রকৃত হতাহতের সংখ্যা হয়ত অনেক বেশি।

Friday, March 4, 2022

ইউক্রেনের হামলায় রাশিয়ার শীর্ষ জেনারেল নিহত

ইউক্রেনের হামলায় রাশিয়ার শীর্ষ জেনারেল নিহত


 

ইউক্রেনের হামলায় রাশিয়ার শীর্ষ জেনারেল নিহত


ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর হামলায় রাশিয়ার সামরিক বাহিনীর এক শীর্ষ জেনারেলের প্রাণহানি ঘটেছে। নিহত ওই রুশ সামরিক কর্মকর্তার নাম মেজর জেনারেল আন্দ্রেই সুখভেতস্কি। গত মঙ্গলবার ইউক্রেনের সামরিক বাহিনীর হামলায় তিনি প্রাণ হারান।

ইউক্রেনে চলমান রুশ সামরিক অভিযানের সপ্তাহখানেকের মাথায় রাশিয়ার জেনারেলের মৃত্যুর তথ্যটি মিডিয়ার মাধ্যমে প্রকাশ্যে এলো। ইউক্রেনের কর্মকর্তা ও রুশ মিডিয়ার বরাতে বৃহস্পতিবার (৩ মার্চ) প্রতিবেদন প্রকাশের মাধ্যমে তথ্যটি জানিয়েছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম ফক্স নিউজ এবং ব্রিটিশ মিডিয়া দ্য গার্ডিয়ান।

ফক্স নিউজ বলছে, ৪৭ বছর বয়সী মেজর জেনারেল আন্দ্রেই সুখভেতস্কির মৃত্যুর সময়কার পরিস্থিতি তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি। যদিও ক্রেমলিন সমর্থিত রুশ মিডিয়া প্রাভদা জানিয়েছে, তিনি ‘ইউক্রেনে একটি বিশেষ অভিযানের সময়’ প্রাণ হারিয়েছেন।

এ দিকে রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা তাস বলছে, রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন গত বছর সেনাবাহিনীর সেন্ট্রাল মিলিটারি ডিসট্রিক্টের ৪১তম কম্বাইন্ড আর্মস আর্মির ডেপুটি কমান্ডার হিসেবে মেজর জেনারেল আন্দ্রেই সুখভেতস্কিকে নিয়োগ করেছিলেন। এছাড়াও জেনারেল সুখভেতস্কি সপ্তম এয়ারবোর্ন ডিভিশনের প্রধান হিসেবেও দায়িত্বপালন করছিলেন।

অবশ্য রাশিয়ার বাইরে জেনারেল সুখভেতস্কির এটিই প্রথম কোনো অভিযান ছিল না। তাস বলছে, মেজর জেনারেল আন্দ্রেই সুখভেতস্কি সিরিয়ায় কাজ করেছেন এবং সাহসিকতার জন্য রাশিয়ান প্রেসিডেন্টের সরকারি বাসভবন ক্রেমলিনের পক্ষ থেকে দুই দফায় পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন।

ইউক্রেনের অবকাঠামো বিষয়ক সাবেক মন্ত্রী ভলোদিমির অমেলিয়ান বৃহস্পতিবার ফক্স নিউজকে জানান, সত্য হচ্ছে, আমরা তাকে (মেজর জেনারেল আন্দ্রেই সুখভেতস্কি) হত্যা করেছি। ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসন শুরুর পর দেশটির সাবেক এই মন্ত্রী হাতে অস্ত্র তুলে নিয়েছেন। এরপর তিনি কিয়েভের মিলিশিয়াদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন।

অবশ্য যুক্তরাষ্ট্রের জ্যেষ্ঠ এক প্রতিরক্ষা কর্মকর্তার দাবি- ইউক্রেনে সেনা অভিযান চালাতে গিয়ে রাশিয়ার অন্যতম শীর্ষ এই সামরিক কর্মকর্তার নিহত হওয়ার বিষয়টি তাৎক্ষণিকভাবে নিশ্চিত হতে পারেনি ওয়াশিংটন।

যদিও একাধিক প্রতিবেদনে রাশিয়ার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ‘ভিকন্টাক্টে’-র একটি পোস্টের উদ্ধৃতি দেওয়া হয়েছে। ওই পোস্টে সের্গেই চিপিলেভ নামে রুশ সামরিক কর্মকর্তাদের এক সদস্য জেনারেল সুখভেতস্কির নিহত হওয়ার তথ্য উল্লেখ করেছেন বলে দাবি করা হয়েছে।

ইংরেজি ভাষার রুশ সংবাদমাধ্যম প্রাভডা.আরইউ-তে প্রকাশিত একটি অনুবাদে বলা হয়, সের্গেই চিপিলেভ লিখেছেন, আমি অত্যন্ত দুঃখের সঙ্গে বলছি, ইউক্রেনের ভূখণ্ডে বিশেষ অভিযান পরিচালনার সময় আমাদের বন্ধু মেজর জেনারেল আন্দ্রেই সুখভেতস্কি প্রাণ হারিয়েছেন বলে আমরা জানতে পেরেছি। আমরা তার পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।

এ দিকে জেনারেল সুখভেতস্কির নিহত হওয়ার বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার (সিআইএ) সাবেক কর্মকর্তা এবং স্টেশন চিফ ড্যান হফম্যান বলেন, ঘটনাটি যদি সত্যি হয়ে থাকে, তবে এটি বিরাট বড় একটি খবর।

উল্লেখ্য, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি স্থানীয় সময় ভোররাতে ইউক্রেনের ভূখণ্ডে ঢুকে আক্রমণ শুরু করে রাশিয়ান সৈন্যরা। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ইউরোপের প্রথম দেশ হিসেবে রাশিয়ার সশস্ত্র বাহিনী স্থল, আকাশ ও সমুদ্রপথে ইউক্রেনে এই হামলা শুরু করে। একসঙ্গে তিন দিক দিয়ে হওয়া এই হামলায় ইউক্রেনের বিভিন্ন শহরে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র পড়েছে বৃষ্টির মতো।

সর্বাত্মক আগ্রাসন শুরুর পর এই এক সপ্তাহেই পূর্ব ইউরোপের এই দেশটির বহু শহর কার্যত ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে। সামরিক অবকাঠামোর বাইরে রাশিয়ার হামলার লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হয়েছে আবাসিক ভবন, স্কুল ও হাসপাতাল। আর তাই জীবন বাঁচাতে দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন ১০ লাখেরও বেশি ইউক্রেনীয়।

আরও পড়ুন : রাশিয়া-বেলারুশে ব্যবসা বন্ধ করল চীনা ব্যাংক

ইউক্রেনে রুশ এই সামরিক উপস্থিতিকে মস্কো হামলা বা যুদ্ধ না বলে শুরু থেকে ‘বিশেষ অভিযান’ বলে দাবি করে আসছে। যদিও রুশ সেনারা ইউক্রেনের সামরিক-বেসামরিক স্থাপনাগুলোতে হামলা করছে বলে অভিযোগ রয়েছে।